প্রবাসী মুক্তিযুদ্ধের সংগঠকদের জন্য সুসংবাদ আসছে

নিউজ ডেস্ক : ‘ঐতিহাসিক ৮ জানুয়ারী’ অর্থ্যাৎ ১৯৭২ বঙ্গবন্ধুর মুক্তি পাওয়ার পর লন্ডনে প্রত্যাবর্তন উপলক্ষ্যে একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি যুক্তরাজ্য শাখার এক ওয়েবিনার অনুষ্টানে, প্রধান অতিথির বক্তব্যে, যুক্তরাজ্য ও আয়ারল্যান্ডে বাংলাদেশের মাননীয় রাষ্ট্রদূত সাইদা মুনা তাসনীম ব্রিটেনে ১৯৭১ সালে প্রবাসী বাঙালি ভাই ও বোনদের ত্যাগ ও বাংলাদেশের আন্দোলনের তাদের সক্রিয় অংশগ্রহণকে শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করেন। এবং একই সাথে তিনি বলেন যে প্রবাসী মুক্তিযুদ্ধের সংগঠকদের স্বীকৃতি দেয়ার লক্ষে বাংলাদেশের প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা উদ্যেগ নিচ্ছেন ।

বঙ্গবন্ধু পাকিস্তানের কারাগার থেকে মুক্তি পাওয়ার পর লন্ডনেই প্রথম আসেন। । কারণ বাংলাদেশের পর সবচেয়ে বেশি বাঙালির বসবাস তখন ব্রিটেনে। ব্রিটেন প্রবাসীদের সঙ্গে বঙ্গবন্ধুর ছিল আত্মিক যোগাযোগ, তাই তিনি বেছে নিয়েছিলেন লন্ডনকে।

বাংলাদেশের সুবর্ণজয়ন্তী ও মুজিব বর্ষ উপলক্ষে যুক্তরাজ্যে মুক্তিযুদ্ধের বীরত্বগাঁথা নিয়ে একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি যুক্তরাজ্য শাখার অনলাইন ওয়েবিনার অনুষ্ঠান ‘তৃতীয় বাংলায় মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধু’ সঞ্চালনায় ছিলেন যুক্তরাজ্য নির্মূল কমিটির কার্যকরী সভাপতি সৈয়দ এনামুল ইসলাম ও সভাপতিত্ব করেন যুক্তরাজ্য নির্মূল কমিটির সহ-সভাপতি নিলুফা ইয়াসমিন হাসান।

অনুষ্টানে বিশেষ অতিথি কেন্দ্রীয় নির্মূল কমিটির ভারপাপ্ত সভাপতি শহীদজায়া শ্যামলী নাসরীন চৌধুরী আহবান করেন সবাইকে সূখী, সম্মৃদ্দ, অসাম্প্রদায়িক বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ে তুলতে।

ক্লারিজেস হোটেল থেকে সরাসরি, যুক্তরাজ্য নির্মূল কমিটির প্রচার সম্পাদক আসম মাসুম বঙ্গবন্ধুর লন্ডনে আগমন, হোটেল আসা এবং সেখান থেকেই বিশ্ববাসীর প্রতি তার প্রথম প্রেস কনফারেন্সর তথ্যগুলি তুলে ধরেন।

আরও বক্তব্য রাখেন বিলেতে মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক হাবিব রহমান, যুক্তরাজ্য নির্মূল কমিটির উপদেষ্টা মাহমুদ এ রউফ ও বিলেতে মুক্তিযুদ্ধের গবেষক ফারুক আহমেদ ।

চলচ্চিত্রকার মকবুল চৌধুরী তার প্রামাণ্য চলচিত্রের ‘নট এ পেনি, নট এ গান’ এর পটভূমি ও অংশবিশেষ দেখান।

অনুষ্টানের শুরুতেই আবৃত্তি ও মুক্তিযুদ্ধের সাহিত্য পাঠ করেন যুক্তরাজ্য নির্মূল কমিটির কার্যকরী সদস্য বাচিক শিল্পী মুনীরা পারভীন ও যুক্তরাজ্য নির্মূল কমিটির সদস্য শাহাব আহমেদ বাচ্চু।

বিলেতে নতুন প্রজন্মের সঙ্গীতশিল্পী নাফিস জয়ের দেশত্ববোধক গানের মাধ্যমে অনুষ্টানের পরিসমাপ্ত ঘটে। ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!