অচেনা কলকাতা ২ : হিন্দু স্টুয়ার্ট

দেবার্ঘ্য কুমার চক্রবর্তী : পার্ক স্ট্রিট সেমেট্রি বা গোরস্থান; সাম্প্রতিক সিনেমা র কারণেই হোক বা নিজস্ব পরিচয়েই হোক, কলকাতা শহরের ইতিহাসে এক অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ। গেছিলাম সেখানে, চেনা গলির অচেনা রহস্য একটু খুজতে। প্রশ্ন করলাম গার্ড কে, এখনকার মূলমূল সমাধি কোনগুলি। উত্তরে জানলাম, উইললিয়াম জোন্স, হেনরি লুই ভিভিয়ান ডিরোজিও আর হিন্দু স্টুয়ার্ট। প্রশ্ন এখানেই; বাকি নাম গুলো তো ঠিক ছিল, লাস্টের নাম টা কেমন যেন সুকুমার রায়ের “হয়ে গেল হাসজারু কেমনে তা জানিনা “ কেস মনে হছে না।আমি বলছি ‘লেট দি কেস ফাইল ওপেন ফার্স্ট’। এভাবেই শুরু হোক আমাদের আজকের চেনা গলির , চেনা শহরের অচেনা গল্প।


‘It’s the tomb of one of the most interesting characters from British India major general Charles Stuart’… The Story of India by BBC.

হেনরি ডিরোজিওর সমাধি

সত্যিই খুব চমকপ্রদ লোক ছিলেন এই মানুষটি । প্রায় ৫০ বছরের জীবনে তিনি প্রতি ভোরবেলাতে গঙ্গা নদীতে সকালের স্নানের জন্য যেতেন । তিনি হিন্দু ধর্ম, হিন্দু দেবীদেবতার আরাধনা করতেন । বিভিন্ন স্থান থেকে পুরোনো হিন্দু দেবতা, দেবীর মূর্তি নিয়ে তিনি তার বাড়িতে প্রায় বানিয়ে ফেলেছিলেন কলকাতার এশিয়াটিক সোসাইটি ছাড়া দ্বিতীয় মিউজিয়াম ।

এছাড়া শুধু মাত্র হিন্দু ধর্মই নয়, ভারতীয় সংস্কৃতির প্রতি তার পৃষ্টপোষকতা তাকে বিশেষ ভাবে আজ ইতিহাসে প্রসিদ্ধ করে । এমনকি শোনা যায় যে কলকাতার ইউরোপীয় মহিলাসমাজের কাছে শাড়ীকে অনেক প্রচলিত করেন । তাই তার মৃত্যুর পরেও চার্লস স্টুয়ার্ট এর কবরস্থলের ওপর সম্পূর্ণ হিন্দু ধর্মীয় ভাস্কর্য শিল্পের সাহায্যে তৈরী করা হয় তার সমাধিসৌধটি । এইভাবেই এক অজানা ইউরোপীয় কলকাতার অজানা গলিতে তৈরী করেছিলেন এক অজানা ইতিহাস ।

হিন্দু স্টুয়ার্টের সমাধি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!