এবার ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় থানায় ,প্রেসক্লাব, আ.লীগ অফিস ও প্রতিষ্ঠানে হামলা, নিহত ২

নিউজ ডেস্ক : বাংলাদেশের ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে হেফাজতে ইসলামের হরতালকারীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে এ পর্যন্ত দুইজন মারা গেছে বলে খবর পাওয়া গেছে , তবে এ সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে অনুমান করা হচ্ছে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক সৈয়দ আরিফুল ইসলাম হাসপাতালে আসার পর গুলিবিদ্ধ দুই জন মারা যাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, তাদের মরদেহ স্বজনেরা নিয়ে গেছেন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার আনিছুর রহমান বলেন, হাইওয়ে থানায় হামলায় অনেক পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। সেখানকার বিস্তারিত তথ্য এখনো জানা যায়নি। সরাইলে পরিস্থিতি উত্তপ্ত থাকলেও মহাসড়ক ছাড়া কোথাও অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রোববার দুপুর পৌনে ১২টার দিকে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের সরাইল বিশ্বরোড মোড়ের খাঁটিহাতা হাইওয়ে থানায় হামলা করেন হেফাজতে ইসলামের সমর্থকেরা। তারা থানা ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করেন। এ সময় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা গুলি চালান।

গুলিতে নিহতরা হলেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার বুধল ইউনিয়নের খাঁটিহাতা গ্রামের আলতাফ আলী ওরফে আলতু মিয়ার ছেলে হাদিস মিয়া ওরফে কালন মিয়া (২৩) এবং সরাইল উপজেলা সদরের কুট্টাপাড়া গ্রামের সুফি আলীর ছেলে আল আমীন (২০)।

সরাইল বিশ্বরোড মোড়, কুট্টাপাড়া মোড়, বারিউড়া, শাহবাজপুর, বেড়তলা এবং সরাইল-নাসিরনগর-লাখাই আঞ্চলিক মহাসড়কের উপজেলা সদরের উচালিয়াপাড়া মোড় কালীকচ্ছ বাজার এলাকায় কয়েক হাজার মাদ্রাসা শিক্ষার্থীসহ লোকজন লাঠিসোঁটা হাতে অবস্থান করছেন। এসব সড়কে কিছুদূর পরপর গাছের গুঁড়ি, বৈদ্যুতিক খুঁটি, গাছপালা ফেলে এবং টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে যান চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। সংবাদ : দি ডেইলি স্টার

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!